ফুটবল বিশ্বকাপের ইতিহাস-০১

ফুটবল বিশ্বকাপের ইতিহাস-০১

সামনেই আসছে ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ ২০১৮, যেটি রাশিয়াতে অনুষ্ঠিত হবে। কিন্তু কি করে আসলো এই ফুটবল বিশ্বকাপ?এর শুরুটা কিভাবে হল?জাতীয় পর্যায়ে কবে থেকে খেলা শুরু হল। আজকের আলোচনা ফুটবল, ফুটবল ক্লাব ও ফুটবল বিশ্বকাপের সৃষ্টি কথা নিয়ে।  বিশ্বকাপের ইতিহাস ও শুরুর গল্পটাই আজকে বলব।


Image result for world cup


পৃথিবীর ইতিহাসে সব থেকে  বড় আয়োজন ও মঞ্চ হচ্ছেফিফা ওয়ার্ল্ড কাপ   আর ফুটবল হচ্ছে  সব থেকে বেশি প্রচলিত খেলা বিশ্বকাপের সময় পুরো  বিশ্ব তাকিয়ে থাকে এই নান্দনিক আয়োজনে যে সকল দেশ এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারে সেই দেশের মানুষের তো কৌতুহূল  থাকেই কিন্তু যে সকল দেশের ফুটবল দল এখানে অংশ নিতে পারে না সেই দেশ গুলোর মানুষেরও যেন কৌতুহূল আর ভাবনার শেষ নেই বিশ্বকাপকে ঘিরে।

যদি আধুনিক  ফুটবলের কথা বলা হয় তবে বেশি দিন পিছিয়ে যেয়ে আমাদের দেখতে হবে না ১৯ দশকের মধ্যবর্তী সময় ইংল্যান্ডে এর শুরু বলা যায়। কিন্তু এই খেলার অন্যান্য ধরণ গুলো তার আগে থেকেই প্রচলিত। যেমন চিনে দ্বিতীয় কিংবা তৃতীয় খ্রিস্টপূর্ব  শতাব্দীতে কাজু  (Cuju) নামে ফুটবলের আদিরুপ  প্রচলিত ছিল । 

ক্লাব পর্যায়ে যদি বলি তাহলে পনেরো শতাব্দিতেও ফুটবল ক্লাবের নজির পাওয়া যায়। তবে তা অফিসিয়াল ভাবে ছিল না । এমনকি ১৮২৪ সালে স্কটল্যান্ডের এডিনবার্গে ফুটবল ক্লাব প্রথম প্রতিষ্ঠিত হয় যার নাম ছিল “ফুট – বল ক্লাব “  প্রথম দিকে মূলত স্কুল ছাত্রদের দ্বারা গঠিত হত ফুটবল ক্লাবগুলো। এরকম প্রথম বারের মত গঠিত হয় শেফিল্ডে ১৮৫৭ সালে কিছু প্রাক্তন স্কুল ছাত্রদের দ্বারা। এর নাম শেফিল্ড এফ,সি । এটিকেই সব থেকে পুরানো ফুটবল ক্লাব  হিসেবে ফিফা গণ্য করে। ১৮৬২ সালে সম্পূর্ণ প্রফেশনাল প্রথম ফুটবল ক্লাব প্রতিষ্ঠিত হয় যার নাম “নট’স কাউনটি (Nott’s County)”এই ক্লাব এখনও খেলছে। বর্তমানে ইংল্যান্ডের চতুর্থ সারির লিগে খেলছে। 

এভাবেই একটি একটি করে ফুটবল ক্লাব গঠিত হতে থাকে।

প্রথম ফুটবল রুল তৈরি হয় ১৮৪৮ সালে ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে যেটিতে বিভিন্ন স্কুলের প্রতিনিধিরা ছিল ।কিন্তু শেফিল্ড এফ,সি ১৮৬৭ সালে নিজস্ব রুল তৈরি করে শেফিল্ড ফুটবল এসোসিয়েশন গঠনের মধ্য দিয়ে।

১৮৬৩ সালে প্রথম ফুটবল এসোসিয়েশন গঠিত হয় বিভিন্ন ক্লাবের প্রতিনিধি দ্বারা যেটি “ফুটবল এসোসিয়েশন  বা এফ,এ ( FA ) নামে পরিচিত। ক্যামব্রিজ রুল কেই এফ,এ এর রুল গঠনে বেশি প্রাধান্য দেয়া হয়।


Image result for football association 1863


এরপর ১৮৭১ সালে  প্রথম ফুটবল প্রফেশনাল কম্পিটিশন আয়োজিত হয় যাকে আমরা “এফ,এ কাপ (FA Cup)” হিসাবে চিনি। এটি ইংল্যান্ডে গঠিত হয়।  


Image result for fa cup

অপরদিকে ১৮৮৮ সালে প্রথম ফুটবল লিগ গঠিত হয়যার নামকরন করা হয় “ ডি ফুটবল লিগ” এটি ইংল্যান্ডে গঠিত হয় ১২ টি ক্লাবের সমন্বয়ে। 

এবার আসা যাক ইন্টারন্যাশনাল ফুটবলের কথায়। এতক্ষণ ক্লাব ফুটবল ও ফুটবল লিগ এর কথা এজন্যই বলা এগুলো আমাদের  ইন্টারন্যাশনাল ফুটবল এর উত্থান সম্পর্কে আইডিয়া দিবে ও বিশ্বকাপের ইতিহাস বুঝতে সাহায্য করবেএছাড়াও ক্লাব ও ইন্টারন্যাশনাল দুটি ধারার ইতিহাস একে অপরের সাথে সম্পৃক্ত কোন না কোন ভাবে।

১৮৭২ সালের ৩০ নভেম্বর প্রথম ইন্টারন্যাশনাল ম্যাচ খেলা হয় স্কটল্যান্ডে ম্যাচটি ছিল স্কটল্যান্ড বনাম ইংল্যান্ড এর । ম্যাচটি 0-0 তে ড্র হয় । ম্যাচটি দেখতে ৪,০০০ দর্শক হ্যামিলটন ক্রিসেন্টে  জড়ো হয়। 

ঠিক এর ১২ বছর পর ১৮৮৩ সালে প্রথম ইন্টারন্যাশনাল ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয় যেখানে ইংল্যান্ড , আয়ারল্যান্ড  ,স্কটল্যান্ড ও ওয়েলস অংশগ্রহন করে।

ইউরোপের বাহিরে আর্জেন্টিনাতে প্রথম ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হত ১৮৬৭ সালে। কিন্তু ব্রিটিশ শ্রমিকরাই ম্যাচটিতে অংশ গ্রহন করে মূলত , আর্জেন্টাইন  অধিবাসীরা নয়।

ধীরে ধীরে ফুটবল বাকি দেশগুলোতেও  জনপ্রিয়তা পেতে শুরু করে। তারই সাথে প্রয়োজন পড়ে একটি সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ফুটবল এর জন্য।

প্রথমে আমরা কিছু জিনিস নিয়ে পরিষ্কার ধারণা নেই আগে। এসোসিয়েশন বলতে বুঝায় কোন শহর ,স্কুল, বিশ্ববিদ্যালয় কিংবা কোন সংস্থা এর সাথে সম্পৃক্ততা। ধরুন প্রিমিয়ার লিগ। এখানে যেসকল ক্লাব খেলে তাদের প্রিমিয়ার লিগ এর নিয়ম মেনে খেলতে হয়। আবার লা লিগা তেও একই রকম। ঠিক ইন্টারন্যাশনাল ফুটবলের ক্ষেত্রে এটি ফিফা।ফিফা নিয়ম জাড়ি করে খেলার।

আবারও আমাদের মূল আলোচনায় ফিরে যাওয়া যাক। তখন ইউরোপের অনেক দেশের  ফুটবল দল  গঠিত হয়। তাদের মধ্যে ম্যাচ অনুষ্ঠিত করানোর জন্য একটি সংস্থা কিংবা একটি সংগঠনের প্রয়োজন তখন দেখা যায় । যেমনটা ডি ফুটবল লিগ ক্লাব গুলোর ম্যাচ ও ম্যাচের নিয়ম নির্ধারণ করেছে। বা এফ,এ কাপ (FA Cup) এর মত কোনো কম্পিটিশন আয়োজন করতে পারে যেখানে শুধু ইন্টারন্যাশনাল ফুটবল দল গুলো অংশ নিবে।

১৯০৪ সালের ২১শে মে  ফিফা (Fifa- The Fédération Internationale de Football Association) গঠন করা হয় ফ্রান্স, বেলজিয়াম, ডেনমার্ক, নেদারল্যান্ড,স্পেইন, সুইডেন 

এবং  সুইজারল্যান্ড এর প্রতিনিধিদের দ্বারা   জার্মানি একই দিনে টেলিগ্রাম এর মাধ্যমে যোগ দিলেও তাদের  প্রতিষ্ঠিত মেম্বার (যারা ফিফা গঠনের সময় ছিল) হিসাবে গণ্য করা হয় না ইংল্যান্ড এবং অন্যান্য ব্রিটিশ দেশ গুলো তখন এই সংস্থাতে যোগ দেয়া নাকচ করে দেয়। ১৯০৫ সালের ১৪ই এপ্রিল ইংল্যান্ড যোগ দিলেও বিশ্বকাপে ১৯৫০ প্রথম যোগ দেয়।

 রবার্ট গেয়েরিন (Robert Guérin) ফিফার প্রথম প্রেসিডেন্ট হিসাবে  নির্বাচিত হন। 


Image result for fifa

১৯০৮ সালে ফুটবল প্রথম বারের মত অলিম্পিকে যুক্ত করা হয়। কিন্তু ফিফা ১৯০৮ ও ১৯১২ এর অলিম্পিকে ফুটবল এর আয়োজনের কাজ করে নি । ফুটবল এসোসিয়েশন  বা এফ,এ ( FA ) এই দায়িত্ব পালন করেছিল। এবং দুইবারই গ্রেট ব্রিটেন জয়ী হয়। 

সাউথ আফ্রিকা প্রথম ইউরোপের বাইরের দেশ হিসাবে ফিফাতে যুক্ত হয় ১৯০৯ সালে এবং পরবর্তীতে ১৯১২ সালে আর্জেন্টিনা ও চিলি ফিফাতে যুক্ত হয়। ব্রাজিল যুক্ত হয় ১৯২৩ সালে

১৯১৩ সালে প্রথম বিশ্বযুদ্ধ শুরু ঠিক পূর্বে ইউনাইটেড স্টেটস (আমেরিকা) ও কানাডা ফিফাতে যুক্ত হয়।

বিশ্বযুদ্ধের সময় ইন্টারন্যাশনাল তেমন কোন ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় নি। ১৯১৯ সালে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পর ফিফা এর প্রথম মিটিং হয়। ১৯২০ সালে   জুলে রিমে (Jules Rimet) ফিফা এর তৃতীয় প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। এরপর ১৯২৪ সালে প্রথমবারের মত ফিফা অলিম্পিকে ফুটবল ম্যাচ আয়োজনের দায়িত্ব পায়।

১৯৩২ সালের অলিম্পিক  ইউ,এস,এ এর লস এঙ্গেলস এ অনুষ্ঠিত হবে কিন্তু ফুটবল সেখানে বেশি প্রচলিত না থাকায় অলিম্পিক কমিটি ১৯৩২ সালের অলিম্পিকে ফুটবল কে অন্তর্ভুক্ত করতে অনিহা প্রকাশ করে এবং পরবর্তীতে ১৯৩২ সালের অলিম্পিকে ফুটবল আয়োজন করা বাদ দিয়ে দেয়।১৯২৮ সালে এই সিদ্ধান্তটি অলিম্পিক কমিটি নিলে ফিফা তা মেনে নিতে পারে নি।ফিফা প্রেসিডেন্ট জুলে রিমে ১৯২৯ সালে তখন একটি ইন্টারন্যাশনাল ফুটবল কম্পিটিশন করার জন্য ভোট পাশ করানঠিক তার একবছর পর ১৯৩০ সালে প্রথম ফুটবল বিশ্বকাপ আয়োজিত হয়।ফুটবল বিশ্বকাপের ট্রফির নাম “ভিক্তরী”রাখা হয়, কিন্তু   “কোপ ডু মণ্ডে”  (Coupe du Monde) বা বিশ্বকাপনামেই পরিচিতি পায়  ১৯৪৬ সালে ট্রফিটির নাম পরিবর্তন করে জুলে রিমে রাখা হয় ফিফার তৃতীয় প্রেসিডেন্টের প্রতি সম্মান রেখে যিনি বিশ্বকাপ আয়োজনের ভোট পাশ করান  


Image result for 1930 world cup

Image result for jule rime


উরুগুয়ের স্বাধীনতা উদযাপনের জন্য উরুগুয়েকে আয়োজক  দেশ হিসাবে ফিফা ঠিক করে। ১৯৩০ বিশ্বকাপ উরুগুয়েতে মোট ১৩ টি দেশের অংশগ্রহনে অনুষ্ঠিত হয়েছিল যার মধ্যে ৭ টি দেশ হচিল দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশের ও ৪ টি ইউরোপ মহাদেশের । ঐ বিশ্বকাপের ফাইনালে ৯৩ হাজার দর্শক স্টেডিয়ামে বসে খেলা দেখেছিল।


Image result for 1930 world cup

 

এখান থেকেই শুরু । এখনও চলছে । অনন্তকাল ধরে এভাবেই চলবে। বিশ্বের ইতিহাসের শ্রেষ্ঠতম আসর , ফুটবল বিশ্বকাপ।

প্রতিটা বিশ্বকাপ এভাবেই পালিত হবে , প্রতিটা বিশ্বকাপে এভাবেই নতুন নতুন ইতিহাস গড়া হবে।  হাজারো স্বপ্নের সৃষ্টি ও ভাঙা এখানেই হবে। সবার চোখ মাঠের ঐ ২২ জন কাণ্ডারির উপরই পরে থাকবে যুগ যুগ ধরে। তবু কখনও একে ঘিরে কৌতুহূলের শেষ হবে না ।

[১৯৩০ থেকে প্রতিটি বিশ্বকাপ ও বিশ্বকাপগুলোর ইতিহাস নিয়ে  "ফুটবল বিশ্বকাপের ইতিহাস" শিরোনামে পরবর্তীতে আরও পর্ব লিখব। সাথেই থাকবেন সবাই আসা করি।] 

নতুন আর্টিক্যাল পাবলিশড হওয়া মাত্রই পড়তে চান?

আজই সাবস্ক্রিপশন করে নিন