সিরি আ এবার কার : নাপোলি নাকি জুভেন্টাসের?

সিরি আ এবার কার : নাপোলি নাকি জুভেন্টাসের?

চলতি সিজনে ইউরোপের সকল লীগের খেলা মাঠে গড়িয়েছে অর্ধেকের বেশি। প্রিমিয়ার লীগের কয়েকটি দলের ৩১তম রাউন্ডের ম্যাচ খেলা শেষ, ইন্টারন্যাশনাল ব্রেকের আগে স্পেনের লা লীগাতেও শেষ হয়েছে ২৯তম রাউন্ডের ম্যাচগুলো। অর্ধেকের বেশি ম্যাচগুলো সমাপ্ত হবার পর অনেকটাই পরিষ্কার কোন দল জিততে যাচ্ছে লীগ শিরোপা। প্রিমিয়ার লীগে ম্যানচেস্টার সিটি এগিয়ে আছে ১৬ পয়েন্টে, লীগ ওয়ানে পিএসএজি বা বুন্দেসলীগায় বায়ার্ন মিউনিখও এমন বিশাল পয়েন্টের ব্যবধানে এগিয়ে। তাই লীগের সর্বশেষ ফলাফল এখনি নির্ধারণ করে না দেওয়া গেলেও হাতে কলমে সেটা অনেকটা পরিষ্কার। তবে ইতালির সিরি আ তে ঘটনা ভিন্ন, সেখানে যে জুভেন্টাস ও নাপোলির মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই দেখতে প্রস্তুত ফুটবলবিশ্ব, কারন তাদের মধ্যকার পয়েন্ট ব্যবধান যে মাত্র ২।


যদিও সিজন শুরুতে সিরি আ এর চেহারা এমনটা ছিলোনা। লীগে প্রথম থেকে ইন্টার মিলান তাদের অপরাজিত থাকার মর্যাদা ধরে রেখে শিরোপার দৌড়ে বেশ ভালোভাবে এগিয়ে যাচ্ছিলো। কিন্ত মাঝপথে ইন্টার মিলান ফর্ম হারিয়ে লীগ শিরোপা থেকে একদমই ছিটকে পরে আর তখনি হুট করে দৃশ্যপটে আবির্ভাব ঘটে নাপোলি ও জুভেন্টাসের লড়াই। যদিও বিষয়টা জমে উঠেছে গত ২৯তম রাউন্ডে জুভেন্টাসের ড্র ও নাপোলির জয়ের পর।


লীগে জুভেন্টাস ও নাপোলির উভয়ের ম্যাচ বাকি আছে ৯ টি। যার মধ্যে নাপোলি ও জুভেন্টাসের মধ্যকার সরাসরি একটা ম্যাচ রয়েছে। ৯ টি ম্যাচের ভেতর নাপোলি ম্যাচ বাদে জুভেন্টাসের বড় দলের বিপক্ষে ম্যাচ আছে  ৩ টি। নিজেদের মাঠে তারা খেলবে এসি মিলানের বিপক্ষে আর ইন্টার মিলান ও রোমার সাথে খেলবে তাদের মাঠে গিয়ে। জুভেন্টাসের জন্য মিলান ও রোমা ম্যাচদুটো বেশ তাৎপর্যপুর্ন। রোমা ও ইন্টার মিলান লড়াই করছে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের একটি পজিশনের জন্য, তাই তারা অবশ্যই কামনা করবে জুভেন্টাসের পয়েন্ট খোয়ানোর।


অপরদিকে নাপোলির সামনে ৯ টি ম্যাচের মধ্যে মধ্যে মাত্র ২টি বড় দলের বিপক্ষে। জয়ে উদ্দেশ্যে এসি মিলান ও জুভেন্টাসের মাঠে গিয়ে লড়াই করবে তারা। এছাড়া বাকি ৬ ম্যাচ নাপোলির জন্য তুলনামুলক সহজ। কারন বাকি ম্যাচ গুলো সাসুয়েলো, উদিনেসে, তুরিনো বা ফিউরেন্তিনার মত মাঝারি মানের দলের বিপক্ষে, যাদের বড় কোন শিরোপা জয়ের প্রত্যাশা নেই তেমনি নেই রেলিগেশনের ভয়। 


লীগ ছাড়া নাপোলির কোন পিছুটান নেই। চ্যাম্পিয়ন্স লীগে তারা গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছে, সেখানে জুভেন্টাস চ্যাম্পিয়ন্স লীগের সেমি ফাইনালে পা দিয়ে ফেলেছে। তাই মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রির ভাবনার বিষয় শুধুমাত্র লীগ নয়। ধারাবাহিক ভালো পারর্ফমেন্স ধরে রেখে মাওরিৎসিও সারি'র দল যদি জুভেন্টাসের মাঠে ড্র করতে পারে সেক্ষেত্রে নাপোলিও জিতে যেতে পারে দীর্ঘ ২৮ বছর পর কাঙ্ক্ষিত লীগ শিরোপা।

নতুন আর্টিক্যাল পাবলিশড হওয়া মাত্রই পড়তে চান?

আজই সাবস্ক্রিপশন করে নিন