অফিশিয়াল: ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর থেকে উয়েফা নেশন'স লীগের যাত্রা শুরু

অফিশিয়াল: ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর থেকে উয়েফা নেশন'স লীগের যাত্রা শুরু
Md. Shohag Ali September 21, 2017, 12:33 am National Team

সব জল্পনা-কল্পনা শেষে অবশেষে অফিশিয়ালি ঘোষণা এল ২০১৮ সালের বিশ্বকাপের পর সেপ্টেম্বর থেকে যাত্রা শুরু হতে যাচ্ছে উয়েফাভুক্ত দেশগুলোর সমন্বয়ে উয়েফা নেশন লীগ। বর্তমানে ফিফা বিশ্বকাপ ও উয়েফা ইউরো কাপের পাশাপাশি উয়েফাভুক্ত দেশগুলোর জন্য ৩য় কম্পিটিশন হিসেবে চালু এই টুর্নামেন্ট। লীগ পদ্ধতির টুর্নামেন্টের ফলে থাকবে না বর্তমানে প্রচলিত ফ্রেন্ডলি ম্যাচ।

উয়েফা নেশন লীগের প্রথম ধারণা আসে ২০১৩ সালে অক্টোবর মাসে, যখন নরওয়ে ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি ইঙ্গিত দেন যে এরকম লীগ চালু করার পথে উয়েফা, যা কেবল পরিকল্পনা হিসেবে। সেই পরিকল্পনা অবশেষে বাস্তবে রূপ নিতে যাচ্ছে।

কেমন হবে নেশন লীগ? বর্তমানে ক্লাব ফুটবলের মাঝে মাঝে উয়েফার দেশগুলো ফিফা আয়োজিত ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খেলে থাকে। কিনতু উয়েফা নেশন লীগ চালু হলে ফ্রেন্ডলি ম্যাচ থাকবে না। উয়েফা সদস্য ৫৫টি দেশকে ৪টি গ্রুপে ভাগ করে লীগ পদ্ধতির টুর্নামেন্ট প্রচলন হবে। গ্রুপ নির্ধারিত হবে দেশগুলোর র‍্যাংকিংয়ের ভিত্তিতে। গ্রুপগুলোর মধ্যে থাকবে প্রমোশন এবং রেলিগেশন। সেটাও র‍্যাংকিংয়ের ভিত্তিতে। 

নেশন লীগের ফলে ছোট দেশগুলো যেমন ম্যাচ পাবে এবং ম্যাচ আয়োজনের ঝামেলায় যেতে হবে। অন্যদিকে বড় দলগুলোও বেশিরভাগ সময় অন্যান্য সমশক্তির বিপক্ষে ম্যাচ খেলবে। এছাড়ায় মাল্টা, লুক্সেমবার্গ, লাটভিয়ার মতো দেশগুলোকে হয়তো বড় ব্যবধানের হারের লজ্জায় পড়তে হবে কালেভদ্রে। 

গ্রুপিং সিস্টেমে মোট ৫৫টি দেশকে ৪টি লিগে ভাগ করা হবে। লিগ-এ তে সেরা ১২টি দেশ, বি'তে ১৩-২৪তম দেশ, সি-তে ১৫টি এবং ডি-তে ১৬টি দেশ। এরপর লিগ-এ ও বি'কে আবার ৪টি করে গ্রুপে ভাগ করা হবে। সি'তে ৩টি দেশ নিয়ে ১টি গ্রুপ এবং বাকি ১২টি দেশ নিয়ে ৩টি গ্রুপ। গ্রুপ-ডি ৪টি গ্রুপ ৪টি করে দেশ নিয়ে গঠিত হবে।

২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে শুরু এ টুর্নামেন্টের উইনার নির্ধারিত হবে ২০১৯ সালের জুনে এবং চ্যাম্পিয়ন হবে লিগ-এ সেরা দেশ। প্রতি ২ বছর অন্তর চলতে থাকবে উয়েফা নেশন লীগ।

এছাড়া নেশন লীগের সাথে উয়েফা ইউরোর বাছাইপর্বের সংযোগ ঘটানো হবে। যার ফলে ছোট দেশগুলোর ইউরোতে খেলার সুযোগ বাড়বে। যদিও এটি সমালোচিত। কারণ এর ছোট দেশগুলো বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব থেকে তাড়াতাড়ি বাদ পড়ে, ইউরোতে খেলার সুযোগ বাড়াতে চাইবে। যেটা কিছুটা জটিল, কিন্তু অসম্ভব হবে না ইউরোপিয়ান দেশগুলোর জন্য।





Similar Post You May Like

জনপ্রিয় খেলার সংবাদ

Find us on Facebook