ম্যানচেস্টারে ইউনাইটেডে নাম লেখাচ্ছেন মাতিচ

ম্যানচেস্টারে ইউনাইটেডে নাম লেখাচ্ছেন মাতিচ
Shihab Rahman July 30, 2017, 9:09 pm English premier league

একজন ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডারের সন্ধান করছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড বেশ সময় ধরেই। ক্যারিয়ারের শেষ বয়সে উপনীত হওয়া মাইকের ক্যারিকের যোগ্য উত্তরসূরি এখনও খুজে পায়নি রেড ডেভিলসরা। বিগত মৌসুমগুলোতে স্নাইডারলিন, শোয়াইনস্টাইগার ও মারুয়ান ফেলাইনিকে দলে ভেরালেও ডিফেন্সিভ মিডফিল্ড পজিশনটাকে একান্তই নিজের করে নিতে পারেননি কেউই। তবে এই সুদীর্ঘ অপেক্ষা ও আক্ষেপের অবসান হতে পারে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড নতুন সাইনিং এর মধ্য দিয়ে - নেমানইয়া মাতিচ।

গত মৌসুম থেকেই মাতিচের ওপর আগ্রহ দেখিয়ে আসছে ইউনাইটেড। গত বছর তাদের ইনকোয়াইরিকে না বলে দিলেও মোনাকো থেকে বাকায়োকোকে সাইন করায় মাতিচের জন্য অফার শুনতে প্রস্তুত ছিল চেলসি। ৫০ মিলিয়ন পাউন্ড দাবি করলেও ইনিশিয়াল ৪০ মিলিয়ন পাউন্ডে এগ্রিমেন্টে এসেছে চেলসি ও ইউনাইটেড। মেডিকেল সম্পন্ন করতে আজ ম্যানচেস্টারে এসেছেন মাতিচ। আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে কালকের মধ্যেই নাম লেখাতে পারেন ইংল্যান্ডের ইতিহাসের ইতিহাসের সবচেয়ে সাকসেসফুল ক্লাবে। 

 

মাতিচের ওপর জোসে মোরিনহোর আগ্রহ তার বেনফিকায় খেলার সময় থেকেই। বেনফিকা থেকে ২০১৪ সালে ২৫ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে মাতিচকে সাইন করে চেলসিতে। আর চেলসির কোচ তখন ছিলেন খোদ মোরিনহোই। মাতিচের সহায়তায় পরের মৌসুমেই লীগ জিতেন চেলসিকে নিয়ে। কেবল প্লেয়ার মাতিচই নয়, ব্যক্তি মাতিচকেও বেশ ভাল করেই চেনেন জোসে। 

এ মৌসুমে চেলসির লীগ জয়ী ক্যাম্পেইনে মাতিচের ভূমিকা ছিল বিপুল। কান্তের পাশে মাঝমাঠে এক অপ্রতিরোধ্য ব্যারিয়ার গড়ে তোলেন। যেখানে কান্তে ছিলেন রোমিং বল উইনার, মাতিচ খেলেছেন ডিপ লাইয়িং প্লেমেকার বা রেজিস্তা রোলে। চেলসির হয়ে তৃতীয় বারের মত হয়েছেন প্রিমিয়ার লীগ চ্যাম্পিওন। আর এজন্যই তাকে চাইছেন মোরিনহো। মাইকেল ক্যারিকের মতই ডিফেন্সিভ মাইন্ডেড রেজিস্তা চান মোরিনহো - যিনি একই সাথে ডিফেন্ড করবেন এবং ডিকটেটও করবেন। বর্তমান ফুটবলে এরকম কম্বিনেশন ক্রমশই বিরল হচ্ছে। মোরিনহো এবার প্রী-সীজনে প্রতিবারই ৩ ম্যান মিডফিল্ড খেলিয়েছেন। হোল্ডিং মিড হিসাবে কখনও ছিল ক্যারিক, কখনও পেরেইরা বা ম্যাকটমিনায়। মিডফিল্ডারের অভাব থাকার ৪২৩১ ফর্মেশন খেলাতে বাধ্য হয়েছেন গত মৌসুম, পল পগবাকে খেলতে হয়েছে ডিক্টেটর রোলে। পগবার মৌসুম মোটেও ভাল যায়নি এতে। তবে নেমানইয়া মাতিচের আগমন এবার বেশ কিছু ল্যাকিংসের অবসান ঘোচাবে বলেই ধারণা করছেন মোরিনহো এবং ইউনাইটেড ফ্যানরা।





Similar Post You May Like

Find us on Facebook