পারমা : ভবিষ্যতে প্রত্যাবর্তন

পারমা : ভবিষ্যতে প্রত্যাবর্তন

কিছুদিন আগের কথা। হুট করে একটা ভিডিও বেশ কিছু ইন্টারন্যাশনাল ফুটবলিং গ্রুপে ভাইরাল হয়ে গেলো। পারমা নামের একটা টিম নাকি সিরি সি থেকে সিরি বি তে উত্তীর্ণ হয়েছে। এতো "ক্ষুদ্র" একটা সংবাদ এইভাবে ভাইরাল হওয়ার কারণ অনেকেই জানেন না। একটা টিম অচর্চিত ইতালিয়ান কালসিও এর থার্ড ডিভিশন থেকে সেকেন্ড ডিভিশনে উঠে আসা এইটা কিভাবে গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ হতে পারে? "

 

"পারমা সিরি আ থেকে রেলিগেটেড হয়েছে কেন? " এই প্রশ্নটাই আপনার মাথায় আসতো না, যদি আপনি এখন ১৯৯২ সালে ইতালীর পারমা নগরীর একটা বারে বসে মদের গেলাসে চুমুক দিয়ে টেলিভিশনে পারমা এফসির দোর্দন্ড প্রতাপ দেখতেন।

 

 

পারমা প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯১৩ সালের জুলাই মাসে ভের্দি ফুটবল ক্লাব নামে, এই নাম রাখা হয় মূলত পার্মাতে জন্ম নেওয়া বিখ্যাত ইতালীয় অপেরা কম্পোজার গুইসেপ্পে ভের্দির নামে। সিরি বি এর অন্যতম ফাউন্ডিং মেম্বার হলো পারমা। ১৯৬৮ সালে চলতে থাকা টার্মওয়েলের দরুন পারমার মালিকানা পরিবর্তন হয় এবং বর্তমান নাম রাখা হয়। এখানে বেশ দীর্ঘ একটা গল্প আছে । সে আরেকদিন হবে 'খন। 

 

১৯৮৪ সালে পারমা দল সিরি বি তে ফেরত আসে মিলানের লেজেন্ড এবং পাওলো মালদিনির বাবা সিজারে মালদিনির হাত ধরে। পরের বছর নতুন কোচ আবারো সিরি বি এর শেষ ৩ এ পারমাকে ঠেলে দিয়ে আশঙ্কায় ফেলে দেয় পারমা ফ্যানদের। পরের বছর এক নবাগত কোচের হাত ধরে পারমা আবার সিরি আ তে ফিরে আসে। ঐ সিজন পারমা একটু জন্য সিরি আ মিস করলেও সবাইকে হতভম্ব করে দিয়ে কোপা ইতালিয়া জিতে নেয় তখনকার প্রতাপশালী এসি মিলানকে হারিয়ে। এই চমকপ্রদ জয় তখনকার মিলান-মালিক সিলভিও বের্লুস্কোনিকে বাধ্য করে সেই নবাগত কোচের হাতে মিলানের ভার তুলে দিতে। কোচটির নাম জানেন? আরিগো সাক্কি- মিলানের সর্বকালের সেরা কোচ, যার হাত ধরে ডাচ ট্রায়োকে দুনিয়া চিনেছিল।  

১৯৯০ সালে পারমা নাটকীয়ভাবে সিরি আ তে প্রবেশ করে রেজ্জিনার সাথে দার্বি সেল্লেঞ্জা ২-০ গোলে জিতে। ম্যানেজার নেভিও স্কালা প্যারেন্ট কোম্পানী পারমালাত এর এর সহযোগিতায় গড়ে তোলে এক দারুণ স্কোয়াড। '৯২ সালেই দেখা মেলে প্রথম সাফল্যের , ইয়ুভেন্তুসকে দুই লেগেই হারিয়ে কোপা ইতালিয়া জিতে নেয় পারমা। পরের বছরই ওয়েম্বলিতে কাপ উইনার্স কাপ জিতে নেয় পারমা, বেলজিয়ান দল এন্টভের্প এর বিরুদ্ধে খেলে। পরের বছর দলটি জিতে নেয় ইউয়েফা সুপার কাপ মিলানকে ২-১ গোলে হারিয়ে। কাপ উইনার্স কাপে আর্সেনালের কাছে ১-০ গোলে হেরে যায় দূর্দান্ত খেলতে থাকা ক্লাবটি। ১৯৯৬ সালে স্কালা আনচেলত্তির হাতে পারমাকে তুলে নিয়ে বিদায় জানান, যার হাত ধরে সবকিছু ভোজবাজির মত পালটে গেছে পারমার ক্ষেত্রে। 

আঞ্চেলত্তি দলকে ১৯৯৭ সালে ইতিহাসের সেরা পজিশন, সিরি আ রানার্স আপ, এ নিয়ে যান। পরের বছর পারমা চ্যাম্পিয়নস লীগে প্রথমবারের মত খেলে। আলবার্তো মালেসানিকে দেখা যায় পারমার কোচ হিসেবে, সেই বছর ডাবল জেতানো কোচ হিসেবে- পারমা ফিওরেন্তিনার সাথে কোপা ইতালিয়া আর মার্শেই এর সাথে ইউয়েফা কাপ জেতে। সেই শেষ নয় , পরের বছর সুপারকোপা ইতালিয়ানা জিতে নেয় তারা মিলানের সাথে খেলে। পরের বছর মালসেনি পদ ছেড়ে দেন আর ক্লাবের স্টার হার্নান ক্রেসপোকে লাযিও এর কাছে রেকর্ড ট্রান্সফার ফি তে বেঁচে দেওয়া হয়। 

রেঞ্জো উলিভিয়েরির অধীনে পারমা কোপা ইতালিয়া ফাইনাল হারে ফিওরেন্তিনার সাথে। ২০০২ সালে নতুন কোচ পিয়েত্রোর হাত ধরে আসে তাদের তৃতীয় কোপা ইতালিয়া, ইয়ুভেন্তুসকে হারিয়ে। কিন্তু ১৯৯০ সালের পর প্রথমবারের মত ৭ নাম্বারে থেকে লীগ শেষ করে। তাই প্রথমবারের মত সেই বছর ইতালী থেকে ৭টা দল ইউরোপিয়ান টুর্নামেন্টে অংশগ্রহন করে, এই ঘটনাকে ট্যাগ দেওয়া হয় "সেভেন সিস্টার্স" নামে।  

 

কিন্তু বিধি বাম। আস্তে আস্তে পারমালাত কোম্পানীর আর্থিক অসচ্ছলতার জন্য ২০০৪ সালের এপ্রিল মাসে পারমাকে অসচ্ছ্বল ঘোষনা করা হয় এবং বিশেষ প্রশাসনের অধীনে আরো তিন বছর রাখা হয়। 

 

২০০৫ সালে পারমা তাদের সিরি আ এর ইতিহাসের সর্বনিম্ন পজিশনে লীগ শেষ করে, তাদের টপ গোলস্কোরার জিলার্দিনোকে বিক্রি করে দেয় ২৫ মিলিয়ন ইউরোতে, ১৯৯০ সাল থেকে প্রথমবারের মত ইউরোপিয়ান প্রতিযোগীতার বাইরে থাকে। 

 

২০০৭ সালের ২৪ জানুয়ারি তোমাসো ঘিরার্দি পারমাকে স্ব-মালিকানায় কিনে নেন এবং ক্লাবের দায়িত্বভার দেন ক্লদিও রানিয়েরির উপর, যাকে আপনারা সবাই চেনেন "লেইচেস্টার রূপকথা" এর পর। রানিয়েরির প্রবল চেষ্টায় ঐ বছর পারমা রেলিগেশন থেকে উদ্ধার পেলেও পরের বছর শেষরক্ষা হয়নি। ১৮ বছর পর পারমা আবার রেলিগেশনে। ফ্যানরা ঘিরার্দির প্রতিবাদে উত্তাল। 

 

 

ফ্রান্সেসকো গুইদোলিন আবারো পারমাকে সিরি আ তে প্রমোট করেন এবং পরের বছর সিরি আ তে অষ্টম পজিশনে নিয়ে যান, উদিনেস ৭ম স্থানে থেকে ইউরোপা লীগের অবস্থানটি তাদের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেয়। ঘিরার্দির আগের স্যাক করা ম্যানেজার মারিনো, গুইন্দোলিনের অনুরোধে পারমার চার্জে আবার আসেন এবং ২০১১ সালে পারমাকে রেলিগেশন থেকে উদ্ধার করেন। পরের সিজন ফ্রাঙ্কো কলম্বা এবং তার পরের বছর ম্যানেজার রবার্তো দোনাদুনির বদান্যতায় পারমা অষ্টম হয়ে সিরি আ তে টিকে থাকার যুদ্ধে জয়ী হয়। 

 

২০১৪ সালে পারমা সিরি আ তে ৬ষ্ঠ হয় কিন্তু ইউরোপা লীগে খেলতে ব্যর্থ হয়, কারনটা খুবই মর্মান্তিক। ইনকাম ট্যাক্স এর পেমেন্ট দেরীতে হওয়ায় ইউয়েফা লাইসেন্স হারায় পারমা। পরের বছর মার্চে পারমাকে দেউলিয়া ঘোষণা করা হয় এবং সকল সিরি আ ফ্যানের মনের কষ্ট বাড়িয়ে সিরি ডি তে রেলিগেটেড করা হয় ৭৫ মিলিয়ন ইউরো ঋণসহ। পারমার মত ঐতিহ্যবাহী ক্লাবের এই রকম দুরবস্থা সহ্য করা প্রায় দুর্বিষহ কষ্টের ব্যাপার হয়ে দাড়িয়েছিলো সকল সিরি আ ফ্যানের কাছে।

তারপর শুরু হয় পারমার জেগে ওঠা। ক্লাবের সব লেজেন্ড, ভক্ত,লোকাল অথোরিটি,চাইনিজ কোম্পানী ডেস্পোর্টস গ্রুপ" সবাই এগিয়ে এসে পারমার মালিকানা নেয়। এখন একক মালিকানায় নয় বরং ফ্যান,লোকাল অথরিটি এবং ডেস্পোর্টস গ্রুপ এর সম্মিলিত মালিকানায় পারমা চলছে। ক্লাব ক্যাপ্টেন লুকারেল্লি ক্লাব ছেড়ে যেতে অস্বীকৃতি জানান এবং এই প্যাশনের বলে পারমা অসাধ্য সাধন করে ফেলে।২০১৫-১৬ সিরি ডি এবং ২০১৬-১৭ সিরি ডি চ্যাম্পিয়ন হয়ে তারা এখন সিরি বি তে। কেবল সকলের অনুপ্রেরণাই খেলোয়াড়দের ভালো করার রসদ, সেই রসদ কাজে লাগিয়ে পারমা এগিয়ে যাচ্ছে সিরি আ এর পথে। খুব সম্ভবত এক বছরের মধ্যেই সিরি আ তে পারমাকে দেখার সম্ভাবনাই বেশি, এমনটাই মনে করেন পারমার ক্যাপ্টেন ওয়ান্ডার লুকারেল্লি। ক্লাবের প্রেসিডেন্ট পদে আসীন হয়েছেন ক্লাবেরই লিজেন্ড এবং আর্জেন্তিনা দলের এককালের স্টার স্ট্রাইকার হার্নান ক্রেসপো।  

 

যে দল বুফন, ক্যানাভারো, হার্নান ক্রেসপো, স্টইচোকভ, ভেরন, জোলা, দিনো বাজ্জিও-এদের মত আরো অনেক লিজেন্ডদের গড়ে তুলেছে, যে ক্লাবের রয়েছে অন্যতম সমৃদ্ধ ঐতিহ্য, সেই ক্লাব আবার ফিরে আসুক সিরি আ তে , আবার লড়াই করুক ইউরোপীয় প্রতিযোগিতায়, এইটাই এখন সিরি আ ফ্যানসহ সকল ফুটবলপ্রেমীদের চাওয়া। 

নতুন আর্টিক্যাল পাবলিশড হওয়া মাত্রই পড়তে চান?

আজই সাবস্ক্রিপশন করে নিন