হোর্হে সাম্পাওলির ১ মাসের ইউরোপ ট্যুর।

হোর্হে সাম্পাওলির ১ মাসের ইউরোপ ট্যুর।

গতকাল দেশে ফিরেছে হোর্হে সাম্পাওলি। তিনি এক মাসের ইউরোপ ট্যুরে ছিলেন। ভাববেন না তিনি ঘুরে বেড়ানোর জন্য বেরিয়েছিলেন, তিনি বিশ্বকাপ প্রস্তুতির জন্যই এক মাসের যাযাবর হয়ে গিয়েছিলেন। নানান দেশে গিয়েছেন আর্জেন্টিনার প্লেয়ারদের সাথে দেখা ও আলোচনা করতে ব্যাস্ত ছিলেন তিনি। ৬ দেশের ক্লাবে খেলা ২৮ আর্জেন্টাইন প্লেয়ারের সাথে তিনি দেখা করেছেন। বিশ্বকাপের জন্য যে স্কোয়াড তিনি বানাবেন সেখানে যে এই ২৮ প্লেয়ার থেকে অনেকেই থাকবেন সেটা অনুমেয়। চলুন দেখে আসা যাক সেই ২৮ জন আর্জেন্টাইনদের।

পর্তুগালে তিনি দেখা করেছেন স্পোর্টিস সিপির মার্কোস আকুনিয়া ও বেনফিকাতে খেলা এদুয়ার্দো সালভিও।

স্পেনে গিয়ে বার্সেলোনা থেকে দেখা করেছেন লিওনেল মেসি ও হাভিয়ে মাশ্চেরানোর সাথে। সেভিয়া থেকে দেখা করেছেন গুইডো পিজ্জারো, এভার বানেগা, গ্যাব্রিয়েল মার্কাডো ও নিকোলাস পারেহার সাথে। এ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ থেকে আনহেল কোরেয়া ও হোয়াকিন কোরেয়া। এছাড়াও স্পেন থেকে তিনি বিশ্বকাপ সম্পর্কে আলোচনা করেছেন ফ্রাংকো ভাজকুয়েজ ও আগুস্তো ফার্নান্দেজর সাথে। এছাড়াও বলে রাখা উচিত স্পেনে মাতিয়াস ক্রানাভিটা, এ্যাজেকিয়েল গ্যারাই ও লুইসিয়ানো ভিয়েত্তো ও জেরেমিনো রুল্লির সাথে তিনি দেখা করেন নি। এতে অনুমান করা যায় তাদের প্রতি খুব একটা আগ্রহী নন আর্জেন্টাইন কোচ।

ইংল্যান্ডে গিয়ে দেখা করেছেন এভারটনের ডিফেন্ডার রামিয়ো ফুনেস মৌরি। দীর্ঘসময় ইঞ্জুরির কারনে মৌরি দলের বাইরে থাকলেও এখনো সে আর্জেন্টিনা দলের নির্ভযোগ্য ডিফেন্ডার। এছাড়া ওয়েষ্টহ্যামে ম্যানুয়েল লানজিনি, ম্যান ইউ এর গোলকিপার সার্হিও রোমেরো ও ডিফেন্ডার মার্কোস রোহো ও ম্যান ইউতে নিকোলাস ওটামেন্ডি ও সার্হিও আগুয়েরোর সাথে তিনি দেখা করেছেন। কিন্ত পাবলো জাবালাতা ও ফেদ্রিকো ফার্নান্দেজ, উলিয়াম ক্যাবায়েরো, এরিক লামেলা ইদানিং ভালো ফর্মে থাকলেও তাদের তিনি উপেক্ষা করে গেছেন।

নেদারল্যান্ডে তিনি একজন মাত্র খেলোয়ারের সাথে দেখা করার জন্য গিয়েছিলেন। তিনি হলেন ফুলব্যাক নিকোলাস ট্যাগলিয়াফিকো।

ফ্রান্সে গিয়ে তিনি দেখা করেছেন পিএসজির প্লেয়ার আনহেল ডি মারিয়া ও জিওভানি লো সেলসোর সাথে। পিএসজির আরেক প্রতিভাবান আর্জেন্টাইন হাভিয়ে পাস্তোরের সাথে তিনি দেখা করেন নি।

ইতালিতে গিয়ে তিনি দেখা করেছেন আটলান্টার পাপু গোমেজ,  জুভেন্টাস থেকে পাওলো দিবালা ও গঞ্জালো হিগুয়াইনের সাথে। এছাড়াও ডিয়েগো পেরত্তি, ফেদ্রিকো ফাজিও, লুকাস বিলিয়া ও ইন্টার মিলানের মাউরো ইকার্দীর। 

এ তালিকা থেকেই যে তার পুর্নাঙ্গ স্কোয়াড হবে সেটা ভুল। রাশিয়াতে গুরুত্বপুর্ন আর্জেন্টাইন প্লেয়ার আছে, জার্মানিতে লুকাস আলারিও এর মত প্রতিভাবান। ক্রিশ্চিয়ান পাভোন, লিওনান্দ্রো প্যারাদেস,লাওতারো মার্টিনেজ, এঞ্জো পেরেজ, নিকোলাস গাইতান,এমিলিয়ানো ইনসুয়া, ফার্নান্দো গ্যাগো এবং আর্জেন্টিনার স্থানীয় ফুটবলার তো আছেই। আবার নতুন করে কেউ ভালো পারফর্মেন্স দিয়ে নজর কেড়ে নিতেই পারে।

নতুন আর্টিক্যাল পাবলিশড হওয়া মাত্রই পড়তে চান?

আজই সাবস্ক্রিপশন করে নিন