মাঠের পারফর্মেন্সে এ জুটির রসায়ন কি ভাষায় প্রকাশযোগ্য!

মাঠের পারফর্মেন্সে এ জুটির রসায়ন কি ভাষায় প্রকাশযোগ্য!

শঙ্কা ছিলো, গত দু ম্যাচে সেল্টা বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদের ড্র করে বুঝিয়ে দিয়েছিলো কোপা দেল রে সেকেন্ড লেগ ম্যাচ ক্যাম্প ন্যু তে হলেও খুব সহজ হবে না বার্সেলোনার জন্য। কিন্ত সকল ভয়, শঙ্কা উড়ে গেল মাত্র দুই মিনিটে। লিও মেসি জোড়া গোল করলেন মাত্র দুই মিনিটের ব্যবধানে। কিন্ত মেসি ও লেফটব্যাক জর্দি আলবা গত ম্যাচে যা করলেন আর চলতি সিজনে যা করছেন তা কি ভাষায় প্রকাশ করা যায়!


ম্যাচের ১৩ মিনিটে প্রথম গোল করেন লিও মেসি, কিন্ত বলের যোগান ছিলো এ সিজনে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা জর্দি আলবার। জর্দি আলবার বাড়ানো বলে নিচু শর্টে সহজ গোল করতে কোন ভুল করেন নি মেসি। ১৫ মিনিটে গোলের সুযোগ তৈরি করেছিলেন মেসিই, নিজে সলো রান দিয়ে জর্দি আলবার সাথে দেওয়া নেওয়া করে আলবার এসিস্টে ফিনিশিংটা তিনিই দিয়েছেন। গত ম্যাচে মেসি আলবা জুটির জাদু এখানেই শেষ নয়। পরে লম্বা দুরত্বের পাস দিয়ে আলবকে দিয়ে মেসি যে গোলটা করালেন তা আনথিংকেবল, আনপ্রেডিক্টেবল জাস্ট ম্যাজিক্যাল। আলবা ফিনিশিংটাও করেছেন দারুনভাবে।


শুধু গতকালের সেল্টা ভিগো ম্যাচ নয়, এ সিজনের শুরু থেকে আলবা আর মেসির বোঝাপড়াটা যেন আগে থেকে অনেক বেশি পোক্ত। আলবা নিজেই স্বীকার করেছেন নেইমার এর দল ছেড়ে যাওয়াটা দলের জন্য ক্ষতি হলেও তার জন্য এক দিক দিয়ে বরং লাভই হয়েছে। নেইমারের বিদায়ের পর লেফটসাইড ফাঁকা হবার পর লেফটব্যাক পজিশনে খেলা আলবার জন্য যেন হয়ে গেছে ফাঁকা মাঠ। ডিফেন্সে থেকে যেমন রক্ষনে সহায়তা করছে, তেমনি ঝড় তুলছেন উইং পজিশনে। আর দানি আলভেজ চলে যাবার পর সম্ভবত লিও মেসি জর্দি আলবাকেই দানি আলভেজ ভেবে নিচ্ছেন যার কারনে আলবার বাড়ানো বেশিরভাগ বল খুজে পাচ্ছে মেসির বাম পা।


সত্যি কথা বলতে কি, জর্দি আলবা বার্সেলোনাতে নিজের সেরা সময়টা পার করছেন সাথে মেসির সাথে নতুনভাবে জুটি বাধার বিষয়টা তো আছেই। বার্সেলোনা সমর্থকরা সবসময় চাইবে এ জুটি আর তাদের রসায়ন বেঁচে থাকুক আজীবন।

নতুন আর্টিক্যাল পাবলিশড হওয়া মাত্রই পড়তে চান?

আজই সাবস্ক্রিপশন করে নিন