ডেভিড ডি গিয়া: যাকে স্কাউট করতে গিয়েছিলেন স্যার অ্যালেক্স ফারগুসন, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের খেলা বাদ দিয়ে !

ডেভিড ডি গিয়া: যাকে স্কাউট করতে গিয়েছিলেন স্যার অ্যালেক্স ফারগুসন, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের খেলা বাদ দিয়ে !

২০১১ সালের ফেব্রুয়ারিতে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের গোলকিপার এডউইন ভ্যান ডার সার ঘোষণা দেন, তিনি ওই বছর সিজন শেষে রিটায়ার করবেন। ইউনাইটেড আগে থেকেই জানত রিটায়ারমেন্ট এর ঘোষণা আসবে। তাই ঘোষণার আগেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড খোঁজা শুরু করে দিয়েছিল কে এই গ্রেট ভ্যান ডার সার কে রিপ্লেস করবে? বেশ গুঞ্জন ও জল্পনা-কল্পনা চলছিল যে, সম্ববত ম্যানুয়েল নয়ার হতে পারেন ইউনাইটেডের নেক্সট নাম্বার ওয়ান। স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসন মনে মনে শালকের নয়ার কেই ঠিক করে রেখেছিলেন। সেই অবস্থায় একদিন ইউনাইটেডের গোলকিপার কোচ এরিক স্টিল এসে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের এক ২০ বছর বয়সী তরুন গোলকিপারের কথা শোনান স্যার অ্যালেক্স কে, এবং তাকে অনুরোধ করেন কেবল একবার ডি গিয়ার খেলা দেখে আসার জন্য। স্যার অ্যালেক্স এর ভাষ্য ছিল এরকম; 

কিন্তু নয়ার (বর্তমান বায়ার্ন মিউনিখ গোলকিপার) তো কমপ্লিট একটা ইউনিট, পরিপূর্ণ প্লেয়ার, শারীরিকভাবেও অনেক শক্তিশালি। আমার মনে হয় শালকের সাথে কথা বললে তারা খুশি হবে নয়ার কে দেবার জন্য। 

কিন্তু ইউনাইটেডের গোলকিপার কোচ এরিক স্টিল তার কথায় অনড়, তিনি ডি গিয়ার ৩ মিনিটের গোলকিপিং ভিডিও দেখান স্যার অ্যালেক্স কে, তার ভাষ্য ছিল

"কিন্তু ৩-৪ বছরের মদ্ধে, সে নয়ারের চাইতেও ভাল হবে।" 


অনেক বড় একটা স্টেটমেন্ট। স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসন দেখলেন ভিডিও, তিনি অবশেষে কনভিন্স হলেন ডি গিয়াকে দেখতে যাবেন। সেপ্টেম্বর ২২ তারিখে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ম্যাচ ছিল স্কানথর্প এর বিপক্ষে লিগ কাপের ম্যাচে। স্যার অ্যালেক্স এর আগে ২০০০ সালে ম্যানচেস্টার ডার্বি মিস করেছিলেন ছেলের বিয়ের জন্য। কিন্তু এবার? এবার তিনি খেলা মিস দিলেন ভ্যান ডার সারের যোগ্য উত্তরসূরি খোঁজার জন্য। স্যার অ্যালেক্স আর এরিক স্টিল ২ জন মিলে ভ্যালেন্সিয়া বনাম অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের ম্যাচ দেখতে চলে যান। স্যার ফার্গি অবাক হন ডি গিয়ার ক্ষিপ্রতা, মনোযোগ, আর রিফ্লেক্স দেখে। ৬৫ মিনিট তিনি খেলা দেখে সিদ্ধান্ত নেন, ডি গিয়াকেই ওল্ড ট্রাফোর্ডে নিয়ে আসবেন। 


এরপর জুন ২০১১ তে ১৯ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যোগ দেন ডেভিড ডি গিয়া। প্রথম ম্যাচ ছিল কমিউনিটি শিল্ড, ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে। সেই ম্যাচে ইউনাইটেড জিতলেও ডি গিয়া সহজে গ্রিপ করা যায় এমন শটে গোল কন্সিড করলেন। ইংলিশ মিডিয়া রীতিমত স্যার অ্যালেক্সের পিছে লাগল, "এ কেমন গোলকিপার কিনলেন আপনি"। ডি গিয়ার প্রতি স্যার অ্যালেক্স এর বিশ্বাস এমন ছিল, তিনি গিয়ার মিস্টেকের পরেও তার উপরে রাগারাগি করতেন না, মিডিয়ার আগ্রাসন থেকে দূরে সরিয়ে রাখতেন। সেই বিশ্বাসের প্রতিফলন, আজকের ডি গিয়া বিশ্বের অন্যতম সেরা গোলকিপার। 

 

নতুন আর্টিক্যাল পাবলিশড হওয়া মাত্রই পড়তে চান?

আজই সাবস্ক্রিপশন করে নিন